• আজ ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
 পটুয়াখালীতে জাতীয় কন্যাশিশু দিবস উদযাপন | টাইপিষ্ট থেকে অডিটর, রব এর বিরুদ্ধে ঘুষ- দূর্নীতির নানা অভিযোগ। পর্ব-৫ | পটুয়াখালীতে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের কর্মশালা | পটুয়াখালীতে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে হাঙ্গার প্রজেক্টের মতবিনিময় সভা | টাইপিষ্ট থেকে অডিটর, রব এর বিরুদ্ধে ঘুষ- দূর্নীতির অভিযোগ। পর্ব-৪ | সাজেদা চৌধুরীর মৃত্যুতে ‍শেখ মিলির শোক | সাজেদা চৌধুরীর মৃত্যুতে আজকালের সংবাদ পরিবারের শোক | সংসদ উপনেতা সাজেদা চৌধুরী আর নেই | সাজেদা চৌধুরীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক | টাইপিষ্ট থেকে অডিটর, রব এর বিরুদ্ধে ঘুষ- দূর্নীতির নানা অভিযোগ। পর্ব-৩ |

টাইপিষ্ট থেকে অডিটর, রব এর বিরুদ্ধে ঘুষ- দূর্নীতির নানা অভিযোগ। পর্ব-৩

| নিজস্ব সংবাদদাতা ২:৩১ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১০, ২০২২ Breaking, সারাবাংলা
Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদক- অবৈধ আয়ের অর্থে শহরে দুই স্ত্রী নিয়ে বিলাসী জীবনযাপন আর বীরদর্পে চলাফেরা করছেন পটুয়াখালী এজি অফিসের অডিটর আবদুর রব। পৌর শহরে প্রথম স্ত্রীর জন্য ২ (দুই) কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মান করেছেন পাঁচ তলা বিশিষ্ঠ বিলাসবহুল বাড়ী। আর দ্বিতীয় স্ত্রী প্রিয়াংকা রানীর জন্য বাড়ী না করলেও চলছে ফ্লাট কেনার পায়তারা। অভিযোগ এলাকাবাসী ও সংশ্লিষ্টদের।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, আবদুর রব ২০১৭ সালে অডিটর হিসেবে পটুয়াখালী জেলা একাউন্টস এন্ড ফিন্যান্স অফিসে যোগদান করার পর নিয়ম-বর্হিভূতভাবে শিক্ষা বিভাগ,  এলজিইডিসহ একাধিক দপ্তরের কর্মচারীদের উন্নয়ন ও রাজস্বখাত গণনা ও টাইমস্কেল প্রদান করে হাতিয়ে নিয়েছেন কোটি কোটি টাকা।

এ অবৈধ টাকায় আবদুর রব আত্নিয়-স্বজনদের নামে কিনেছেন জমি। আর নামে-বেনামে বিভিন্ন ব্যাংকে রেখেছেন কোটি কোটি টাকা। অপরদিকে প্রথম স্ত্রীর জন্য পৌর শহরে নির্মান করেছেন ২ (দুই) কোটি টাকা ব্যয়ে ৫ তলা বিশিষ্ঠ বিলাসবহুল বাড়ী। আর  দ্বিতীয় স্ত্রী প্রিয়াংকা রানীকে বাড়ী করে না দিলেও বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছেন পৌর শহরের কলেজ রোড এলাকায়। তবে একটি সূত্র জানিয়েছেন বর্তমানে রব দ্বিতীয় স্ত্রীর নামে ফ্লাট কেনার পায়তারা করছেন।

অডিটর আবদুর রব এর দায়িত্বপ্রাপ্ত সকল দপ্তরের কর্মচারীদের উন্নয়ন ও রাজস্বখাত গণনা ও টাইমস্কেল প্রদানের যাবতীয় বিল প্রস্তুত করেন পটুয়াখালী সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের অবসরপ্রাপ্ত অফিস সহকারী (ওই সময় একাধিক দূর্নীতির অভিযোগ থাকা ব্যক্তি)  কাজী মো. সামসুল হক,  পিটিআই’র (অবঃ) অফিস সহকারী মো. আওরঙ্গজেব, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের রেকর্ডরুম শাখার অফিস সহকারী বেল্লাল হোসেন, মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্রের এম এল এস এস মো. ফোরকান ও মোহরার মো. ইদ্রিস মিয়া। আর অফিসের চেয়ারে বসে জমিদারী ষ্টাইলে ধুমপানরত অবস্থায় ওই সকল কাগজপত্রে স্বাক্ষর করে অনুমোদনের জন্য ডিএএফও এর নিকট প্রেরণ করেন আবদুর রব ।

দশমিনা উপজেলায় চাকুরী করার সময় প্রিয়াংকা রানীকে বিয়ে ও শহরে দুইটি পরিবার নিয়ে বিলাসী জীবন যাপন বিষয়ে পটুয়াখালী জেলা একাউন্টস এন্ড ফিন্যান্স অফিসের অডিটর আবদুর রব কোন সদুত্তর না দিয়ে বলেন, এ সকল তথ্য গুলি আপনাকে কে দিয়েছে আমাকে বলবেন?

অডিটর আবদুর রব এর অবৈধ অর্থের উৎস ও সকল অপকর্মের বিচার করবেন কর্তৃপক্ষ এমনটাই দাবী এলাকাবাসী ও সংশ্লিষ্টদের।

–চলবে—

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন সময়ের সংবাদে । আজই পাঠিয়ে দিন মেইলে -