• আজ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দেশের অর্থনীতি এখনো যথেষ্ট শক্তিশালী আছে ; প্রধানমন্ত্রী

| নিজস্ব সংবাদদাতা ৪:৩৫ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ২৪, ২০২২ Breaking, সারাবাংলা
Spread the love

যশোর সংবাদদাতা – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি এখনো যথেষ্ট শক্তিশালী আছে। রিজার্ভ কোথাও যায়নি। রিজার্ভ মানুষের কাজে লেগেছে। ব্যাংকে কোনো টাকা নেই, এটা মিথ্যা কথা। আমদানি ও রফতানি বৃদ্ধি পেয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটায় যশোর শামস্-উল হুদা স্টেডিয়ামে আয়োজিত জনসভায় তিনি এ সব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, রফতানি বেড়েছে। রেমিট্যান্স আসছে। কর কালেকশন বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশ্বের অনেক দেশ অর্থনৈতিক মন্দার মুখোমুখি হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশের অর্থনীতি এখনো যথেষ্ট শক্তিশালী আছে।

প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে ঘিরে শুধু স্টেডিয়ামের সভাস্থলই না; যশোর শহর জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছে। এর আগে বেলা ১২টার দিকে পবিত্র কুরআন তিলাওয়াত, গীতা ও ত্রিপিটক পাঠের মধ্যদিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জনসভা শুরু হয়।

যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনের সভাপতিত্বে দলীয় প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে দলীয় ব্যানারে ঢাকার বাইরে প্রধানমন্ত্রীর এটিই প্রথম জনসভা। তার আগমন ঘিরে গোটা যশোর নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা ছিল।

এর আগে দুপুর ১২টার আগেই কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে জনসমুদ্রে রূপ নেয় জনসভাস্থল। জনসভা ঘিরে  নেতাকর্মীদের ভিড়ে কানায় কানায় পরিপূর্ণ ছিল যশোরের শামস-উল-হুদা স্টেডিয়াম।

এ সময় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের মধ্যে দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য পীযুষ ভট্টাচার্য, আবদুর রাজ্জাক, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, এসএম কামাল ও দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

পঞ্চাশ বছর আগে ১৯৭২ সালের ২৬ ডিসেম্বর যেখানে জনসমুদ্রে দাঁড়িয়ে ভাষণ দিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, ঠিক সেখানেই দাঁড়িয়ে তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ভাষণ দিতে যাচ্ছেন। ইতিহাসের সেই পুনরাবৃত্তি দেখার দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশ।

 

 

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন সময়ের সংবাদে । আজই পাঠিয়ে দিন মেইলে -